Monday, 19 November 2012

মানসিক রোগ সিজোফ্রেনিয়া




সিজোফ্রেনিয়া একটি মস্তিকের রোগ৷ এতে মনের স্বাভাবিকতা হারিয়ে যায় এবং মস্তিস্কের বিঘ্ন ঘটে৷মূল কারণ জানা না গেলেও সিজোফ্রেনিয়ার জন্য নিম্নলিখিত কারণগুলো দায়ী বলে মনে করা হয় -


* পারিবারিক এবং বংশগত হতে পারে ( মা, বাবার কারো থাকলে তাদের বাচ্চাদের হওয়ার সম্ভবনা বেশি থাকে)৷
* গর্ভবতী মায়েদের মধ্যে অনেক সময় দেখা দেয়৷
* পুষ্টিহীনতার কারণে হতে পারে৷
* রোগজীবাণু দ্বারা মস্তিস্কের সংক্রমণ ঘটলে হতে পারে৷ যেমন-ভাইরাস
* বিভিন্ন ঔষুধের কারণে হতে পারে৷যেমন-ডায়ইউরেটিস
* মাথায় আঘাতজনিত কারণে হতে পারে৷

লক্ষণ:

* রোগীর চিন্তাশক্তি নষ্ট হয়ে যায়৷
* রোগী সামাজিক পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে চলতে পারে না এবং সমাজ থেকে পৃথক হয়ে যায়৷
* মানসিক জীবন খণ্ডিত হয়ে যায়৷
* মানসিকভাবে অস্থিতিশীল হয়৷
* রোগীর মনে হয় অন্যেরা তার চিন্তাভাবনা টের পেয়ে যাচ্ছে৷
* রোগী মনে করে তার কর্মব্যস্ততা অন্যের দ্বারা পরিচালিত হয়৷
* রোগীর দৃষ্টিভ্রম হয়৷
* রোগী মনে করে তার চারপাশের সবাই তার প্রতি ষড়যন্ত্র করছে এবং গোপনে তার ক্ষতি করার চেষ্টা করছে৷

চিকিত্‌সা:

দ্রুত রোগীকে মানসিক ডাক্তার দেখাতে হবে৷

প্রতিরোধ :

* মানসিক চাপ কমাতে হবে৷
* মদ এবং নেশাজাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে৷
* ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী নিয়মিত ঔষুধ সেবন করবেন৷


তথ্যসূত্র -
ড্রাগ ডিরেক্টরি 

No comments:

Post a comment